Header Border

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)
শিরোনাম
ফরাজীকান্দি ইউনিয়নে নিবন্ধিত জেলেদের মাঝে চাল বিতরণ আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা কর্মীদের মূল্যায়ন করতে হবে —মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি ফরিদগঞ্জে শিশু বলৎকারের ঘটনায় যুবক আটক  মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষণা দিলেন শ্যামলী খান এসিল্যান্ড ইবনে আল জায়েদকে পদোন্নতি বিদায় সংবর্ধনা নারায়ণগঞ্জে আর কে গ্ৰুপে বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের আন্দোলন  হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে সুষ্ঠুভাবে গভর্ণিং বডির প্রতিনিধি নির্বাচন সম্পন্ন নারায়ণগঞ্জে দানিয়াল হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতার  হাজিগঞ্জের বইমেলায় ছাত্রলীগের স্টল পরিদর্শন করলেন মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম  হাজীগঞ্জে চারদিন ব্যাপী একুশে বই মেলার উদ্বোধন

দাম বেশির কারণে ইলিশের বিক্রি কমেছে -Rknews71

পহেলা বৈশাখের ইলিশ নিয়ে যে মাতামাতি হওয়ার কথা ছিল তা এবারের পহেলা বৈশাখে উপলক্ষে  ছিল না অবশ্য এরও কয়েক বছর আগে থেকেই বর্ষবরণ উদ্‌যাপনে বাঙালির খাবারের তালিকায় ইলিশের কদর একটু একটু করে কমছিল। এরপরও বৈশাখ এলেই চাহিদা বাড়ে ইলিশের। সুযোগ বুঝে দামও বাড়িয়ে দেন বিক্রেতারা। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি।

ইলিশ ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাজারে এই মাছের সরবরাহ মোটামুটি, তবে বিক্রি একেবারেই কম। দেশে ইলিশের অন্যতম পাইকারি বাজার চাঁদপুর। সেখানেও এবার বাজার মন্দা। বৈশাখ ঘিরে হিমায়িত করে রাখা ১২৭ টন ইলিশ অবিক্রীত রয়ে গেছে।

অবশ্য বিক্রি কম হলেও দাম কমেনি। গতকাল রাজধানীর মোহাম্মদপুরের কৃষি মার্কেট বাজার, টাউন হল বাজার ও কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা গেছে, আকারভেদে ইলিশের দাম কেজিতে বেড়েছে ২০০ থেকে ৪০০ টাকা। গতকাল ওই তিন বাজারে এক কেজি বা তার চেয়ে কিছুটা বেশি ওজনের ইলিশ কেজি ১ হাজার ৭০০ থেকে ১ হাজার ৮০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। এক সপ্তাহ আগে দাম ছিল ১ হাজার ৩০০ থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকা। অন্যদিকে ৭০০ থেকে ৮০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছিল কেজি ১ হাজার ২০০ থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকায়।

মোহাম্মদপুরের কৃষি মার্কেট বাজারের মাছ বিক্রেতা মো. ইউনুস মিয়া গতকাল সকাল নয়টা থেকে বেলা একটা পর্যন্ত মাত্র চার কেজি ইলিশ বিক্রি করতে পেরেছেন। তিনি বলেন, পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে এক মণ ইলিশ এনেছিলেন। কিন্তু বাজার একেবারে মন্দা।

কৃষি মার্কেট বাজারের অন্য ইলিশ বিক্রেতাদেরও একই দশা। হাঁকডাক দিয়ে ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারছিলেন না তাঁরা। কোনো কোনো ক্রেতা দাম জিজ্ঞাসা করেই চলে যাচ্ছিলেন।

কারওয়ান বাজারের ইলিশ বিক্রেতা জিয়াউল হক গতকাল বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন, সকাল থেকে ১০ কেজি ইলিশও তিনি বিক্রি করতে পারেননি। এবার রোজার মধ্যে পয়লা বৈশাখ হওয়ায় বিক্রি স্বাভাবিকের চেয়েও কম হচ্ছে বলে মনে করেন তিনি। চাহিদা কম হওয়ার পরও দাম বেড়েছে কেন, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখন যে ইলিশ বাজারে পাওয়া যাচ্ছে, সেগুলো আগের সংরক্ষণ করা। তাই দাম বেশি।’

আরো পড়ুন  এ আর রহমান এখন ঢাকায়,সাথে আছেন ২০০ সঙ্গী

দেশে ইলিশের ছয়টি অভয়াশ্রমের মধ্যে পাঁচটিতে সব ধরনের মাছ ধরার ওপর দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা চলছে এখন। গত ১ মার্চ শুরু হওয়া এই নিষেধাজ্ঞা ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে। এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় বরিশাল, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, ভোলা ও শরীয়তপুর জেলার ইলিশ অভয়াশ্রম–সংশ্লিষ্ট নদ-নদীতে সব ধরনের মাছ ধরা বন্ধ রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ফরাজীকান্দি ইউনিয়নে নিবন্ধিত জেলেদের মাঝে চাল বিতরণ
আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা কর্মীদের মূল্যায়ন করতে হবে —মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি
ফরিদগঞ্জে শিশু বলৎকারের ঘটনায় যুবক আটক 
নারায়ণগঞ্জে দানিয়াল হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতার 
হাজিগঞ্জের বইমেলায় ছাত্রলীগের স্টল পরিদর্শন করলেন মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম 
নারায়ণগঞ্জে অস্ত্র কারখানা শনাক্ত : আটক ১

আরও খবর