Header Border

ঢাকা, সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
শিরোনাম
হাজীগঞ্জের শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে  আশিষ চন্দ্র মজুমদার যোগদান শাহরাস্তিতে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ প্রকল্পের উন্নয়ন সহায়তার আওতায় ভর্তুকিতে কৃষি যন্ত্র বিতরণ মতলব উত্তরের উপ-সহকারী প্রানী সম্পদ কর্মকর্তার ইন্তেকাল  মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের গেজেট প্রকাশ  হাজীগঞ্জ পৌরসভার রান্ধুনীমুড়া ও বলাখালে আলহাজ্ব হেলাল উদ্দিন মিয়াজীর আনারস মার্কার সমর্থনে গণসংযোগ,পথসভা অনুষ্ঠিত হাজীগঞ্জে নির্বাচনের টাকা বিতরণের অভিযোগে উপজেলা ও ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদকসহ আটক ২ ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আকবর হোসেন মনিরের পথসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক এম গাফফার বাপ্পী। ভোটের আচরণবিধি ও সরকারি কর্মচারী (আচরণ) বিধি লঙ্গন করে আব্দুর রহমান মোল্লার রাজনীতি ও নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ শাহরাস্তিতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের দাবিতে ব্যারিস্টার কামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে লিফলেট বিতরণ ফরিদগঞ্জে সেক্টর কমাণ্ডার লে: কর্ণেল (অব:) আবু ওসমান চৌধুরী স্মৃতি ফলকের গেইট ভাংচুরের অভিযোগ

পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষা নিয়ে দুই মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্তহীনতায়

এ বছর পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী সারাদেশে ৩০ লাখের বেশি। মাদ্রাসার ইবতেদায়িতে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ছে তিন লাখের মতো শিক্ষার্থী। শিক্ষাবর্ষের চার মাস পার হতে চললেও এই ৩৩ লাখ ছাত্রছাত্রী এ বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় (পিইসি) বসবে কিনা, সেটার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও জানাতে পারেনি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

সাধারণত অক্টোবরের শেষে কিংবা নভেম্বরের শুরুতে পিইসি পরীক্ষা নেওয়া হয়। সিলেবাস চূড়ান্ত, প্রশ্নপত্র তৈরি, মডারেশন, মুদ্রণ ও সারাদেশে তা পরিবহনে অন্তত দুই মাস সময় লাগে। এ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তৈরি ও আনুষঙ্গিক কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকে ময়মনসিংহের জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমি (নেপ)। জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানটির দায়িত্বশীল কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সমাপনী পরীক্ষার বিষয়ে আমরা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি।

করোনার কারণে বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় গত দুই বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছিল। একই সঙ্গে বাতিল করা হয় প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক পরীক্ষাও। তবে এ বছর এখনও মন্ত্রণালয় ‘চুপ’।

একইভাবে, অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা নিয়েও শিক্ষা মন্ত্রণালয় পাকা সিদ্ধান্ত জানায়নি। যদিও সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ বছর জেডিসি পরীক্ষা না নেওয়ার বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়েছেন। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) অধিদপ্তরের হিসাব বলছে, এ বছর বিদ্যালয়গুলোতে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ছে ২২ লাখ ৬১ হাজার ছাত্রছাত্রী। অন্যদিকে, মাদ্রাসায় অষ্টম শ্রেণিতে পড়ছে চার লাখের মতো। জেএসসি ও জেডিসি মিলিয়ে এবার পরীক্ষার্থী সংখ্যা অন্তত ২৬ লাখ ৬১ হাজার। পরীক্ষা নিয়ে এই শিক্ষার্থীরাও আছে দোটানায়।

সব মিলিয়ে দুটি সমাপনী পরীক্ষার জন্য (পিইসি, জেএসসি-জেডিসি) অপেক্ষমাণ প্রায় ৬০ লাখ ছাত্রছাত্রী শিক্ষা সংশ্নিষ্ট সরকারের দুটি মন্ত্রণালয়ের দিকে তাকিয়ে আছে।

প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা এ বছর হবে কিনা জানতে চাইলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আমিনুল ইসলাম খান বলেন, পিইসি পরীক্ষার বিষয়ে এখনও আমরা সিদ্ধান্ত নিইনি। এখনও তো হাতে সময় আছে, দেখা যাক।’ তিনি বলেন, ‘করোনার দুই বছরে প্রাথমিক শিক্ষায় অনেক ক্ষতি হয়েছে। শিক্ষার্থীদের শিখন ঘাটতি থেকে গেছে। যে কারণে আমরা রমজানের মধ্যেও বিদ্যালয় খোলা রেখে ক্লাস নিয়ে শিক্ষার্থীদের সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। সামনের দিনগুলো কেমন আসে, সেটিও দেখার বিষয়।’ তিনি বলেন, ‘পরীক্ষার বিষয়ে সময়মতো সিদ্ধান্ত নিয়ে আমরা তা জানিয়ে দেব।’

আরো পড়ুন  হাজীগঞ্জে সার্কেল অফিস দ্বি-বার্ষিক পরিদর্শন করলেন ডিআইজি | Rknews71

উল্লেখ্য, পিইসি, ইবতেদায়ি সমাপনী ও জেএসসি-জেডিসি পাবলিক পরীক্ষা নয়। ফলে এসব পরীক্ষার আইনি কোনো ভিত্তিও নেই। সরকারের নির্বাহী আদেশে ২০০৯ সাল থেকে পিইসি এবং ২০১০ সাল থেকে জেএসসি পরীক্ষা নেওয়া শুরু হয়। পরে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদেরও এর আওতায় এনে ইবতেদায়ি সমাপনী ও জেডিসি পরীক্ষা চালু করা হয়।

করোনার সংক্রমণের কারণে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছিল সরকার। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে দীর্ঘ ১৮ মাস পর গত সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়। নতুন করে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত ২১ জানুয়ারি আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করে সরকার। এরপর মাধ্যমিক ও তদূর্ধ্ব প্রতিষ্ঠান খোলে ২২ ফেব্রুয়ারি আর প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলা হয় ২ মার্চ থেকে। এর পর থেকে প্রায় পুরোদমেই চলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।
জানা যায়, গত দুই বছর যেমন প্রাথমিক সমাপনী হয়নি, তেমনি আগামী দুই বছর পর থেকে এ পরীক্ষা নেওয়ার আর সুযোগ নেই। কারণ, আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হতে যাচ্ছে। নতুন শিক্ষাক্রমে পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষার কোনো বিধান রাখা হয়নি। ধাপে ধাপে ২০২৪ সালে অষ্টম শ্রেণি ও ২০২৫ সালে পঞ্চম শ্রেণি এ শিক্ষাক্রমের আওতায় আসবে। অর্থাৎ নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী ২০২৪ সাল থেকে জেএসসি ও জেডিসি এবং ২০২৫ সাল থেকে পিইসি ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা থাকছে না।

অভিভাবকরা বলছেন, যে পরীক্ষা আগামী দুই বছর পর এমনিতেই উঠে যাবে, সে পরীক্ষা এ বছর আর নেওয়ার কোনো মানে হয় না। কারণ ছোটদের এই বড় পরীক্ষা তারা চান না। গত দুই বছর পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষা হয়নি। আগামীতেও পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণিতে নতুন কারিকুলাম পৌঁছাতে যে তিন-চার বছর বাকি আছে, সে সময়েও যেন পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষা না নেওয়া হয়। আর এ বছর যদি নিতেও হয় তাহলে আরও আগেই এ ব্যাপারটি পরিস্কার করা উচিত ছিল। কারণ নভেম্বরে এই পরীক্ষাগুলো নেওয়া হয়। এখন এপ্রিল চলছে। আবার না নেওয়া হলেও এ ব্যাপারে ঘোষণা থাকা উচিত, তাহলে শিক্ষার্থীদের বাড়তি প্রস্তুতি নিতে কষ্ট করতে হবে না।

আরো পড়ুন  ফরিদগঞ্জে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন এক হিন্দু যুবক - Rknews71

অভিভাবকদের মতের সঙ্গে সহমত প্রকাশ করে গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী বলেন, সরকারের যে কোনো সিদ্ধান্ত আগেভাগেই শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জানিয়ে দেওয়া উচিত, ঝুলিয়ে রাখা সমীচীন নয়। পিইসি পরীক্ষার বিষয়ে তিনি বলেন, পরীক্ষানির্ভর শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে আমাদের বের হওয়ার সময় আরও আগেই এসেছে। আশার কথা, নতুন কারিকুলামে পরীক্ষার সংখ্যা কমানো হয়েছে। এখন দেখার বিষয়, কতটুকু তা আগামীতে কার্যকর হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

আগামী ১৮ মে আম্বিয়া-ইউনুছ ফাউন্ডেশন’র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান
হাজীগঞ্জে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৪৬৪ জন, শীর্ষে হাজীগঞ্জ সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ
বঙ্গবন্ধু সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হাজীগঞ্জের মেধাবী শিক্ষার্থী শেখ নুরজাহান আক্তার  
হাজীগঞ্জ উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হলেন দীপক চন্দ্র দাশ 
আগামীকাল শনিবার যেসকল জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে
কচুয়া সফিবাদ ফোরকানীয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ

আরও খবর