Header Border

ঢাকা, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)
শিরোনাম
মতলব উত্তর উপজেলায় জাতীয় বীমা দিবসে র‌্যালি ও আলোচনা সভা মতলব উত্তরে জাটকা রক্ষা সংক্রান্ত টাস্কফোর্স কমিটির সভা হাজীগঞ্জে ৫ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ ভন্ড আলতাফ হুসাইনের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিক শেখ সুমনের উপর হামলা হাজীগঞ্জে ইমন হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাসহ আসামি ২৮ হাজীগঞ্জে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সাথে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় মতলব উত্তরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন লাভলী চৌধুরী পিপিএম পদক পেলেন মোহনপুর নৌপুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ মুনিরুজ্জামান  মতলব উত্তরে ইমামপুর পল্লী মঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা গ্রামাঞ্চলের শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করেই বইমেলার আয়োজন করি: অধ্যাপক ড. মোস্তফা জামান

হাজীগঞ্জ প্রধান শিক্ষক রতনের বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ 

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পালিশারা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রতন চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ উঠেছে।  এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দ, অভিভাবক মহলসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
সরেজমিনে জানা যায়, গত ৮ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ের প্রাঙ্গনে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানের দাওয়াত কার্ড নিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ জন্ম নেয়। কার্ডে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রতন চন্দ্র রায়ের আমন্ত্রণে লেখা সন্মানিত সুধী, আদব/ নমস্কার।  উক্ত দাওয়াত কার্ডে কোথায়ও লেখা নেই বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম বা আসসালামু আলাইকুম। বাকি সব পদ পদবি লেখা ঠিক থাকলেও শুরুতে মুসলিমদের যে দাওয়াতের নিয়মনীতি তা ঠিক না রেখে আদম/ নমস্কার লেখা দেখে সবাই হতবাক। তার পরেও এমন দাওয়াত কার্ড পেয়ে যথাসময় এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে অতিথিসহ অভিভাবক সদস্য অনেকেই অংশগ্রহণ করেন। সেখানে অনেকেই এই কার্ডের দাওয়াত নিয়ে প্রশ্ন করলে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রতন চন্দ্র রায় বলেন, আমি আমার ধর্মের দিক বিবেচনা করে নমস্কার/ আদব লিখেছি তবে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম লিখতে পারিনি তা একটু ভুল হয়েছে।  এ কথা শোনার পর থেকে যথারিতি অনেকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছেন উল্লেখ করে প্রধান শিক্ষক রতন চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে আইনগত শাস্তির দাবি করেন। এর পর পরই দাওয়াত কার্ডের নমস্কার /আদব লেখাকে মার্ক করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেয়।
শুক্রবার জুমার নামাজের এক ঘন্টা আগে পালিশারা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রতন চন্দ্র রায় তার ফেইসবুকে উক্ত কার্ডে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম বা আসসালামু আলাইকুমের স্থলে ভুল বসত নমস্কার /আদব লেখা হয়েছে দাবি করে সবাইকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহবান জানান।
এদিকে পালিশারা বাজারের ব্যবসায়ী আনিসুর রহমান,  কাজী সবুজ, খাজে আহমেদ বলেন, এই লোক মুসলিম নিয়ম নীতি মানেন না। তার সময়ে ঠিকমত ছাত্ররা নামাজে আসতে পারে না। দাওয়াত কার্ডে সে ইচ্ছে করেই সালাম না লিখে সরাসরি নমস্কার আদব লিখে আমাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছে।
বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কাজী আনোয়ারুল হক হেলাল বলেন, দাওয়াত কার্ডের এমন প্রশ্নবিদ্ধ ভুল দেখে মূলত আমি বিদায় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করিনি। প্রধান শিক্ষক রতন চন্দ্র রায়ের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে সে ভুল হয়েছে বলে দাবি করেন।
এ বিষয়ে পালিশারা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রতন চন্দ্র রায় বলেন, আমি আমার ধর্মের দিক থেকে কাউকে সালামের স্থানে আদব/নমস্কার জানাই সেই দিক থেকে মনে হয়না ভুল করেছি। তবে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম লেখাটা মিস্ট্রেক হয়েছে। এ জন্য আমি সবাইকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহবান জানাই।
আরো পড়ুন  মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী জানাযা ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন - Rknews71

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

মতলব উত্তর উপজেলায় জাতীয় বীমা দিবসে র‌্যালি ও আলোচনা সভা
মতলব উত্তরে জাটকা রক্ষা সংক্রান্ত টাস্কফোর্স কমিটির সভা
হাজীগঞ্জে ৫ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ
ভন্ড আলতাফ হুসাইনের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিক শেখ সুমনের উপর হামলা
হাজীগঞ্জে ইমন হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাসহ আসামি ২৮
হাজীগঞ্জে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সাথে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময়

আরও খবর