Header Border

ঢাকা, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)
শিরোনাম
মতলব উত্তর উপজেলায় জাতীয় বীমা দিবসে র‌্যালি ও আলোচনা সভা মতলব উত্তরে জাটকা রক্ষা সংক্রান্ত টাস্কফোর্স কমিটির সভা হাজীগঞ্জে ৫ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ ভন্ড আলতাফ হুসাইনের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিক শেখ সুমনের উপর হামলা হাজীগঞ্জে ইমন হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাসহ আসামি ২৮ হাজীগঞ্জে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সাথে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় মতলব উত্তরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন লাভলী চৌধুরী পিপিএম পদক পেলেন মোহনপুর নৌপুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ মুনিরুজ্জামান  মতলব উত্তরে ইমামপুর পল্লী মঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা গ্রামাঞ্চলের শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করেই বইমেলার আয়োজন করি: অধ্যাপক ড. মোস্তফা জামান

বিয়ের দুই বছরের মাথায় মায়ের বাড়ী গিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে জালকুড়ি এলাকায় কাপড় পাল্টানোর কথা বলে ঘরের দরজা বন্ধ করে মাইসা নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে।
গত ২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রাতে মোসাঃ মাইসা (২০) নামের এক বিবাহিত মেয়ে তার বাবার বাড়ীতে এসে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাস দিয়ে আত্নহত্যা করে বলে জানা যায়। মেয়ের মা কহিনুর জলকুড়ি কড়ইতলা সংলগ্ন এলাকায় বসবাস করে। নিহত মাইসা মৃত মোঃ বাবু ও প্রবাসী কহিনুর আক্তার বেবীর মেয়ে। মেয়ের স্বামী নাম মোঃ সাগর মিয়া (২৭) মোঃ খবির উদ্দিনের ছেলে।
পরিবারের সদ্যরা জানায়, মেয়েটি বিবাহিত দুই বছরে তার মায়ের বাড়ী তেমন বেড়াতে আসতো না। তবে ঐ দিন শুক্রবার সন্ধ্যায় মায়ের বাড়ী এসে তার কাপড়ে পাল্টানোর কথা বলে ঘরের দরজা বন্ধ করে অনেক সময় অতিক্রম করলে ঘরের লোকজন জানলা দিয়ে দেখতে পায় সে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁসিতে ঝুলছে। এরপর তারা আত্নীয়স্বজন সংঙ্গে সংঙ্গে ৯৯৯ ফোন দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্দার করে এবং ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়।
ছেলের বাবা মোঃ খবির উদ্দিন বলেন, গত দুই বছর আগে প্রেম করে বিয়ে হয় সাগর ও মাইসার। এরপর সুখে তারা সুখে শান্তিতে বসবাস করে আসছিলো। মেয়ার মা বিদেশ থেকে এসে মেয়ে তার স্বামীর থেকে আলাদা করার চাপ দেয়। ঘটনার দিন মাইসা প্রথমে তার নানীর বাসায় যায় এবং পরে জালকুড়ি কড়াইতলা এলাকায় মা কহিনূরের বাসায় গিয়ে নাকি আত্ম হত্যা করে। মেয়ের মারা যাওয়ার খবর তারা আমাদেরকে দেয় পরের দিন দুপুরে। বিষয়টি নিয়ে আমরা মমার্হত হয়ে যাই। এবং আমার পরিবার ও ছেলে মানুষিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। এখন এই ঘটনা নিয়ে মেয়ের মা আমাদেরকে পুলিশের ভয় দেখিয়ে হয়রানী করছে। আমরা পুলিশের কাছে সঠিক বিচার চাই।
এদিকে নিহত মাইসরা খালা ইতি জানায়, ঘটনার দিন রার সাড়ে ৮ টার দিকে আমার বোনের জালকুড়ি এলাকার বাসায় আসে এবং কিছুক্ষন পর কাপড় পাল্টানোর কথা বলে রুমে ঢোকে। অনেকক্ষন হয়ে গেলেও সে ঘর থেকে বের না হওয়ায় জানালা দিয়ে দেখা যায় সে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছে। পরে ৯৯৯ ফোন দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়। তবে তারা স্বামীর নির্যাতনের কারনে মেয়ে বাসায় এসে আত্মহত্যা করেছে বলে দাবী করেছে।
এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) হুমায়ুন-৩ জানান, আত্মহত্যার সঠিক কারন এখনো জানা যায়নি। ময়না তদন্ত রিপোর্ট হতে পেলে আমরা বুঝতে পারব এই আত্নহত্যার কারন জানা যাবে।
আরো পড়ুন  হারিয়ে গেল পালকি!

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

মতলব উত্তর উপজেলায় জাতীয় বীমা দিবসে র‌্যালি ও আলোচনা সভা
মতলব উত্তরে জাটকা রক্ষা সংক্রান্ত টাস্কফোর্স কমিটির সভা
হাজীগঞ্জে ৫ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ
ভন্ড আলতাফ হুসাইনের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিক শেখ সুমনের উপর হামলা
হাজীগঞ্জে ইমন হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাসহ আসামি ২৮
হাজীগঞ্জে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের সাথে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময়

আরও খবর