Header Border

ঢাকা, রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)
শিরোনাম
ফরিদগঞ্জে ৪’শ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিলেন অর্থোপেডিক্স বিশেষজ্ঞ  ডাঃ তানভীর ভাষার মাসে একজন নিরব ভাষাবিদকে হারিয়ে আমরা বাকরুদ্ধ শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের আয়োজনে মহান একুশে ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা দিবস পালিত শাহরাস্তিতে রাজাপুরা দরবার শরীফের ৫৮তম উরশ মোবারক সম্পন্ন হয়েছে। কালের আর্বতে হারিয়ে গেছে গ্রামবাংলার এতিহ্যবাহী হুক্কা বাচঁতে চায় মতলব উত্তরের ২য় শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থী শুভ  বড় ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ডে পুলিশের নাকের ডগায় আসলামের বেপরোয়া চাঁদাবাজি “নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশন” চাঁদপুর জেলা শাখার উদ্যোক্তা মিটআপ সম্পন্ন বাংলাদেশ আজ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে বিশ্বের বিস্ময়—মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি

হাজীগঞ্জে ১ লাখ টাকায় শিশু সন্তানকে দত্তক দিলেন বাবা-মা

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ, হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি, ||
চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে অভাবের তাড়নায় জোবায়েরা আক্তার নামের ১৩ মাস বয়সি শিশু সন্তানকে দত্তক দিলেন এক দম্পতি। মঙ্গলবার দুপুরে হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন ৩নং ওয়ার্ড ধেররা-বিলওয়াই গ্রামের ইউনুস মজুমদার বাড়ির মো. বশির ও আছমা আক্তার দম্পতি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে সোমবার দুপুরে চাঁদপুর নোটারী, পাবলিকের কার্যালয়ের মাধ্যমে রাজধানীতে নিঃসন্তান এক পরিবারের কাছে সন্তানকে দত্তক দেওয়ার ঘটনা ঘটে। চিকিৎসা ব্যয় ও ঋণের টাকা পরিশোধে ১ লাখ টাকার বিনিময়ে শিশুটিকে দত্তক দেন এই দম্পতি। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।
শিশুটির বাবা মো. বশির জানান, ২০১৬ সালে সিএনজিচালিত স্কুটারের চাপায় গুরুতর আহত হন তিনি। এরপর চিকিৎসাজনিত কারণে তিনি ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েন। বর্তমানে তিনি টাকার অভাবে চিকিৎসা এবং ঋণ পরিশোধ করতে পারছেনা। এছাড়াও তিনি অসুস্থতার কারনে আয়-রোজগার করতে পারছেন না।
তিনি বলেন, আমার সাড়ে তিন বছর ও তের মাস বয়সি দুইটি কন্যা শিশু রয়েছে। টাকার অভাবে আমার চিকিৎসা, ঋণ পরিশোধ ও বাচ্চাদের খাবার কিনতে (ক্রয়) পারছিনা। এদিকে অসুস্থতার কারনে কাজও করতে পারছিনা। তাই ছোট মেয়েকে দত্তক দিয়ে দিয়েছি। বিনিময়ে তারা আমার চিকিৎসার জন্য ১ লাখ টাকা দিয়েছে।
শিশুটির মা আছমা আক্তার জানান, মেয়ের জন্য পরান পড়ে (মায়া লাগে)। কিন্তু কি করবো, আমার স্বামীর চিকিৎসা দরকার। তিনি অসুস্থতার জন্য কোন কাজ কর্ম করতে পারেন না। তিনি সুস্থ থাকলে আমাদের খাওয়া-পড়া। তাই বাধ্য হয়ে মেয়েটারে দত্তক দিয়েছি।
এ বিষয়ে হাজীগঞ্জ থানার অফিসার (ওসি) ইনচার্জ মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান, বিষয়টি জানা নেই। তবে খোঁজ-খবর নিচ্ছি। পরবর্তীতে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোমেনা আক্তার জানান, পৌরসভার প্যানেল মেয়রকে বিষয়টি দেখতে বলেছি। এছাড়াও ওসি সাহবের সাথে কথা হয়েছে। বিষয়টি আমরা দেখছি।
আরো পড়ুন  ২০ এপ্রিল থেকে শুরু হবে 'ঢাবির' ভর্তি পরীক্ষার আবেদন

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ফরিদগঞ্জে ৪’শ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিলেন অর্থোপেডিক্স বিশেষজ্ঞ  ডাঃ তানভীর
ভাষার মাসে একজন নিরব ভাষাবিদকে হারিয়ে আমরা বাকরুদ্ধ
বাচঁতে চায় মতলব উত্তরের ২য় শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থী শুভ 
নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ডে পুলিশের নাকের ডগায় আসলামের বেপরোয়া চাঁদাবাজি
“নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশন” চাঁদপুর জেলা শাখার উদ্যোক্তা মিটআপ সম্পন্ন
বাংলাদেশ আজ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে বিশ্বের বিস্ময়—মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি

আরও খবর