Header Border

ঢাকা, সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
শিরোনাম
হাজীগঞ্জের শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে  আশিষ চন্দ্র মজুমদার যোগদান শাহরাস্তিতে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ প্রকল্পের উন্নয়ন সহায়তার আওতায় ভর্তুকিতে কৃষি যন্ত্র বিতরণ মতলব উত্তরের উপ-সহকারী প্রানী সম্পদ কর্মকর্তার ইন্তেকাল  মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের গেজেট প্রকাশ  হাজীগঞ্জ পৌরসভার রান্ধুনীমুড়া ও বলাখালে আলহাজ্ব হেলাল উদ্দিন মিয়াজীর আনারস মার্কার সমর্থনে গণসংযোগ,পথসভা অনুষ্ঠিত হাজীগঞ্জে নির্বাচনের টাকা বিতরণের অভিযোগে উপজেলা ও ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদকসহ আটক ২ ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আকবর হোসেন মনিরের পথসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক এম গাফফার বাপ্পী। ভোটের আচরণবিধি ও সরকারি কর্মচারী (আচরণ) বিধি লঙ্গন করে আব্দুর রহমান মোল্লার রাজনীতি ও নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ শাহরাস্তিতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের দাবিতে ব্যারিস্টার কামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে লিফলেট বিতরণ ফরিদগঞ্জে সেক্টর কমাণ্ডার লে: কর্ণেল (অব:) আবু ওসমান চৌধুরী স্মৃতি ফলকের গেইট ভাংচুরের অভিযোগ

রোজায় পানিশূন্যতা থেকে বাঁচতে স্বাস্থ্যকর পানীয়

একদিকে প্রচণ্ড গরম, তার মধ্যেই পবিত্র রমজান মাসে রোজা পালন করছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। এ সময় শরীরে যেন পানিশূন্যতা না হয়, সেদিকে সবারই খেয়াল রাখা উচিত। তাই সারা দিন রোজা রাখার পর ইফতার থেকে সাহ্‌রি পর্যন্ত পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করতে হবে। একই সঙ্গে খনিজযুক্ত কিছু স্বাস্থ্যকর পানীয়ও পান করা উচিত, যাতে শরীরে খনিজের ভারসাম্যও বজায় থাকে। কারণ, গরমে ঘামের মাধ্যমে পানির সঙ্গে আমরা কিছু ইলেকট্রোলাইটও হারাই।

ইফতার থেকে সাহ্‌রি পর্যন্ত দুই থেকে তিন লিটার পানি পান করা উচিত। আমরা সাধারণত ইফতার শুরু করি শরবত বা কোনো পানীয় দিয়ে। সেই পানীয় স্বাস্থ্যকর হওয়া চাই। দোকান থেকে কেনা চিনিযুক্ত জুস, কোমল পানীয় ইত্যাদি মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়। আসুন জেনে নিই, রোজার এই সময় কী ধরনের পানীয় উপকারী—

● বাড়িতে তৈরি বিভিন্ন মৌসুমি ফল, যেমন পেঁপে, তরমুজ, কাঁচা বা পাকা আম ইত্যাদির জুস পান করতে পারেন। তবে এতে বাড়তি চিনি দেবেন না। কোনো সিরাপও যোগ করা চলবে না।

● টক দই দিয়ে তৈরি লাচ্ছি, মাঠা, ইসবগুলের শরবত, তোকমার শরবত, ডাবের পানি, লেবুপানি ইত্যাদি স্বাস্থ্যকর পানীয়। ডায়াবেটিস বা স্থূলতা থাকলে চিনি ছাড়াই এসব পানীয় পান করা উচিত।

● যাঁরা কোষ্ঠকাঠিন্যে ভুগছেন, তাঁদের জন্য বেলের শরবত, দুধ–কলার শেক, পাকা পেঁপের জুস ইত্যাদি উপকারী। আলুবোখারার শরবতও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

● রক্তশূন্যতা থাকলে ডালিম বা বেদানার রস, বিটের জুস, গাজরের জুস; খেজুর, আম, আঙুর ইত্যাদি মিশিয়ে পাঞ্চ; কমলার রস পান করতে পারেন।

● যাঁদের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা বেশি, তাঁরা বাঙ্গি, পেঁপে, বেলের শরবত পান করতে পারেন। আদাপানি বা জিনজার ড্রিংকস গ্যাস দূর করতে সহায়ক।

● কেবল শরবত বা জুসই নয়, পানিশূন্যতা দূর করতে শসা–টক দইয়ের ব্লেন্ড, সবজির স্যুপ, চিকেন স্যুপ, সবজির স্মুদি ইত্যাদিও খেতে পারেন।

আরো পড়ুন  ফরিদগঞ্জে বিদ্যুতের লোডশেডিং এ অতিষ্ঠ জনজীবন - Rknews71

● এক গ্লাস দুধে এক চিমটি হলুদ আর সামান্য গোলমরিচের গুঁড়া মিশিয়ে পান করলে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়ে, যকৃতের জন্য উপকারী আর রাতে ভালো ঘুমও হয়।

গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়

● জুস তৈরির সময় ফল বা সবজির আঁশ ফেলে দেবেন না। তাহলে উপকারিতা অনেকটাই নষ্ট হবে।

● বাড়তি চিনি বা কৃত্রিম সিরাপ মেশাবেন না।

● প্যাকেটজাত বা বাণিজ্যিকভাবে তৈরি জুসে কৃত্রিম রং থাকে। কাজেই এগুলো ক্ষতিকর।

● জুস তৈরির আগে ফল বিশুদ্ধ পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন। হাত সাবানপানি দিয়ে ধুয়ে নিন। একই সঙ্গে জুস তৈরির সরঞ্জামও ভালো করে পরিষ্কার করুন।

● চা–কফি শরীরকে পানিশূন্য করে দেয়। কাজেই গরম আর রোজার এ সময় অতিরিক্ত চা–কফি পান থেকে বিরত থাকুন। কোমল পানীয়ও পানিশূন্যতা তৈরি করে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

কুমিল্লায় ভূল চিকিৎসায় কচুয়ার গৃহবধূর মৃত্যু
দেশ সেরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তালিকায় মতলব উত্তর 
শাহরাস্তিতে এসএসসি পরীক্ষায় নকল সরবরাহ, প্রভাষক বহিস্কার
বাচঁতে চায় মতলব উত্তরের ২য় শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থী শুভ 
হাজীগঞ্জে মেডিকেলে ভর্তির জন্য তাজরীর পাশে দাঁড়ালেন পৌর মেয়রের সহধর্মীনি
শাহরাস্তিতে কথিত ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় রোগির অবস্থা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার

আরও খবর