Header Border

ঢাকা, শনিবার, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
শিরোনাম
ফরিদগঞ্জে মানবতার সেবক সিআইপি জালাল আহমেদের জন্মদিন পালন মানুষের জন্য ভালো কিছু করতে হলে আগে নিজেকে পরিশুদ্ধ করতে হবে: সাবেক যুগ্ম সচিব ড. শাহাদাত হোসেন ফরিদগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জেরধরে ব্যবসায়ীর পুকুর থেকে লক্ষাধিক টাকার মাছ লুট  চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে গরীব ও অসহায়দের মাঝে নগদ অর্থ, গৃহনিমাণ সামগ্রী (ঢেউটিন) ও সেলাই মেশিন বিতরণ। বাকিলা উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সদস্য নির্বাচন সম্পন্ন  বলাখাল চন্দ্রবান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হাজীগঞ্জে রোটার‌্যাক্ট ক্লাব অব ডাকাতিয়ায় ঈদ পূর্ণমিলনী, বছর শুরুর সভা ও কলার হস্তান্তর অনুষ্ঠিত আইডিয়াল সমাজসেবা ফাউন্ডেশনের ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত মালিগাঁওয়ে ডাঃ শরিফ হোসেনের মায়ের কুলখানি অনুষ্ঠিত  গন্ধর্ব্যপুর দক্ষিণে জাতীয় শ্রমিক লীগের আহবায়ক ছাত্তার, যুগ্ম আহবায়ক ফরিদ ও মনজু

বৃদ্ধের ধর্ষনে কিশোরী গর্ভবতী, মেয়ে এবং পুএ বধুর সহায়তায় গর্ভপাত

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ১৪ বছরের কিশোরীকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ ও গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে সিরাজুল ইসলাম (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে গর্ভপাত ঘটানোর সঙ্গে জড়িত থাকায় একটি প্রাইভেট ক্লিনিকের আয়াসহ তিন নারীকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এই নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। কীভাবে ধর্ষণ ও গভপাত ঘটানো হয়- এই নিয়ে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ।

পুলিশ সুপার জানান, বৃদ্ধের এমন জঘন্য এবং অনৈতিক কাজে যারা সহযোগিতা করেছে- তাদেরকেও আইনের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। একই সঙ্গে বৃদ্ধ এবং ঘটনার শিকার ১৪ বছরের কিশোরীর ডিএনএ পরীক্ষা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় কিশোরীটির মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে হাজীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেছেন। এতে অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলাম ছাড়াও আরো তিন নারীকে আসামি করা হয়েছে, যারা কিশোরীটির গর্ভপাত ঘটানোর সঙ্গে জড়িত।

এর আগে ভোরে হাজীগঞ্জের হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের হাড়িয়াইন গ্রামের বাড়ি থেকে অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এসময় সেখানকার একটি বসতঘর থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। পরে পুলিশ হাজীগঞ্জ বাজারে অভিযান চালিয়ে ইলামিয়া হাসপাতাল নামে একটি প্রাইভেট ক্লিনিকের আয়া নাজমা বেগমকে গ্রেপ্তার করে। এই নাজমা অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলামের মেয়ে বকুল ও ছেলের স্ত্রী সীমার সহায়তা কিশোরীর গর্ভপাত করায়।

তিনি জানান, গতকাল বুধবার দুপুরে এই হাসপাতালের আয়াকে বাসায় ডেকে নিয়ে গিয়ে কিশোরীর গর্ভপাত ঘটানো হয়। এসময় ওই কিশোরী ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল।

 

এদিকে, ঘটনার দায় স্বীকার করায় দুপুরে অভিযুক্তদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে, ঘটনার শিকার কিশোরীকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দরিদ্র বাবা ও মায়ের অনুপস্থিতিতে দীর্ঘদিন ধরে বৃদ্ধ সিরাজুল ইসলাম কিশোরীকে একা পেয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে অভিযুক্ত তার মেয়ে ও ছেলের স্ত্রীকে দিয়ে হাজীগঞ্জের ইসলামিয়া হাসপাতাল নামে একটি প্রাইভেট ক্লিনিকের আয়া নাজমা বেগমকে বাসায় ডেকে নিয়ে গর্ভপাত ঘটায়।

আরো পড়ুন  এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু ১৩ এপ্রিল

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

কিস্তি উঠানোর নামকরে এক সপ্তাহ ধরে নিখোঁজ দুই সন্তানের জননী 
হাজীগঞ্জ ট্রাক চাপায় গুরুতর আহত রামচন্দ্রপুর কাশেমীয়া সিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী 
হাজীগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড
হাজীগঞ্জে নামাজ শেষে ফিরে এসে দেখেন বৃদ্ধ চালকের অটোরিকশাটি চুরি হয়ে গেছে
চাঁদপুরের কচুয়ায় গরু খামারীকে গুলি করে ৬ গরু ছিনতাই
হাজীগঞ্জে ৬ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারি আটক

আরও খবর